প্রযুক্তি

সহজ-এর রাইডারদের প্রশিক্ষণ দেবে ব্র্যাক

প্রকাশ: ০৪ মে ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান সহজ-এর চালকদের নিরাপদ মোটরসাইকেল চালনায় প্রশিক্ষণ দেবে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক।

আগামী ১২ই মে থেকে ঢাকার উত্তরায় ব্র্যাক ড্রাইভিং স্কুলে আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রশিক্ষণ শুরু হবে। প্রথম পর্যায়ে সহজ-এর রাইড শেয়ারিং সেবার সঙ্গে নিবন্ধিত মোট ১০০ জন চালককে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

মোট চারটি গ্রুপে ভাগ হয়ে একদিনের এই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন চালকেরা। যেসব বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে তার মধ্যে রয়েছে সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ে জ্ঞান, চালকের সঠিক দৃষ্টিভঙ্গি ও আচরণ, নাগরিক দায়িত্ব, ট্রাফিক সিগন্যাল, লেন, নিরাপদ দূরত্ব, নিরাপদ ওভারটেকিং ও গতিবেগ, চালকের ভ’মিকা ও দায়িত্ব, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ট্রাফিক আইন ভঙ্গের মামলা, সড়ক শৃঙ্খলা ইত্যাদি।

বৃহস্পতিবার ঢাকার মহাখালীস্থ ব্র্যাক সেন্টারে আয়োজিত হয় এই প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)-এর প্রকৌশল বিভাগের পরিচালক লোকমান হোসেন মোল্লা, ট্রাফিক বিভাগের সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার আশরাফ উল্লাহ, ব্র্যাকের সড়ক নিরাপত্তা কর্মসূচির পরিচালক আহমেদ নাজমুল হোসাইন, সহজ-এর প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মালিহা এম কাদির এবং যাত্রীকল্যাণ সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন।

ট্রাফিক বিভাগের সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার আশরাফ উল্লাহ বলেন, 'যত্রতত্র মোটর সাইকেল রাখা, বাসযাত্রীদের নামার ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করা, ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়াই রাইড শেয়ারিং কোম্পানিতে নিবন্ধিত হওয়া, যাত্রীর সঙ্গে খারাপ আচরণ ইত্যাদি সমস্যার সৃষ্টি করছেন চালকেরা।'

তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক দুই ধরনের প্রশিক্ষণ সফলভাবে সম্পন্নকারীদের ব্র্যাকের পক্ষ থেকে সনদপত্র দেওয়া হবে। পাইলট প্রকল্প শেষে প্রভাব যাচাই করে প্রয়োজনে প্রশিক্ষণ মডিউল ও কাঠামোয় পরিবর্তন আনা হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে সকল ‘সহজ’ মোটরসাইকেল চালককে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

বিআরটিএ-র পরিচালক লোকমান হোসেন মোল্লা বলেন, ‘রাইড শেয়ারিং সেবা চালু হওয়ার পর থেকে মোটরসাইকেল লাইসেন্সের জন্য প্রচুর আবেদন জমা পড়ছে। ইতিপূর্বে সার্টিফিকেট ছাপার প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ২০২২ সাল পর্যন্ত আমাদের ১৫ লাখ সার্টিফিকেট ছাপানোর চুক্তি ছিল। কিন্তু এ বছরই তা ১৪ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।’

ব্র্যাকের সড়ক নিরাপত্তা কর্মসূচির পরিচালক আহমেদ নাজমুল হোসাইন বলেন, ‘এই প্রশিক্ষণটি আয়োজনের আগে আমরা মোটরসাইকেল চালকদের প্রয়োজনের বিষয়টি যাচাই করেছি। তাতে নিরাপদে যান চালনার ব্যাপারে অসচেতনতার বিষয়টি বেরিয়ে এসেছে। তাদের অনেকের কাছে নিরাপদে চলার চেয়ে গন্তব্যে পৌঁছানোটাই বেশি জরুরি। তারা ভাবেন না দুর্ঘটনা ঘটলে অন্যদের যা হবে, তাদেরও তা-ই হবে। এই মানসিকতার পরিবর্তন জরুরি।’

সহজ-এর প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মালিহা এম কাদির বলেন, ‘রাইড শেয়ারিংয়ের চালকেরা একেকজন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা, কারণ তারা কারোর চাকরি করেন না। তারা যাতে নিরাপদে, আইন মেনে যান চালাতে পারেন সেজন্য এই প্রশিক্ষণের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য।’

উল্লেখ্য, সরকার প্রতিষ্ঠিত জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের সদস্য ব্র্যাকের ‘সুরক্ষা’ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিটি দিল্লিভিত্তিক ইন্দো-অস্ট্রিয় প্রতিষ্ঠান হিউবার্ট এবনার প্রাইভেট লিমিটেডের কারিগরি সহায়তায় বাংলাদেশের জন্য উপযোগী করে প্রণয়ন করা হয়েছে। চালক প্রশিক্ষণ ও নিরাপদ যান চালনার প্রশিক্ষণে হিউবার্ট এবনার ৩০ বছর ধরে কাজ করছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

বিষয় : রাইড শেয়ারিং সহজ ব্র্যাক